Arambagh Times
কাউকে ছাড়ে না

এই প্রকল্পের মাধ্যমে সপ্তাহের প্রতি রবিবারে শহরের পথশিশু, কুষ্ঠ কলোনি এবং যাযাবর সম্প্রদায়ের শিশুদের মধ্যে পুষ্টিকর খাদ্য বিতরণ করা হবে। আজ এই সামাজিক প্রকল্পেরই শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠান হল “স্নেহের পরশ”। কুষ্ঠকলোনির 45 জন যাযাবর সম্প্রদায়ের 25 জন এবং পার্শ্ববর্তী সত্যজিৎ রায় কলোনির 11 জন মোট একাশি জন শিশুর হাতে দুধ, ডিম ,হরলিক্স সহ বিভিন্ন রকম পুষ্টিকর খাদ্য তুলে দেয়া হয় ।একই সাথে আরামবাগের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন করুই রুরাল কালচারাল সোসাইটির সহযোগিতায় কলোনির মহিলাদের স্বাস্থ্য সচেতনতার লক্ষ্যে 100 টি পরিবারের মহিলাদের হাতে স্যানিটারি ন্যাপকিন তুলে দেওয়া হলো। স্নেহের পরশ প্রকল্পের শুভ উদ্বোধন করলেন বাঁকুড়া জেলা পরিষদের সহকারি সভাধিপতি শুভাশিস বটব্যাল ।এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সমাজসেবী হাবিবুর রহমান, সুশান্ত চ্যাটার্জি, চয়ন আহমেদ ,সারাবাংলা কুষ্ঠ কল্যাণ সমিতির সভাপতি যোগেন মিশ্র সহ বিশিষ্টজনেরা। অনুষ্ঠানের প্রধান উদ্যোক্তা মুজিবুর রহমানের বক্তব্য আমরা আমরা জেলা এবং জেলার বাইরে যাযাবর সম্প্রদায়সহ পথ শিশুদের স্বাস্থ্য ,শিক্ষা ,অন্ন ,বস্ত্র, স্থায়ী বাসস্থানের লক্ষ্যে কাজ করে চলেছি। শিশু দের শিক্ষা ব্যবস্থার জন্য আমরা একান্ত আপন পাঠশালা গড়ে তুলেছি। তারই অঙ্গ হিসেবে আজকে আমাদের সংগঠনের তরফ থেকে “স্নেহের পরশ” প্রকল্প শুরু করা হলো ।এই প্রকল্পের মাধ্যমে প্রতি রবিবার ওই সমস্ত শিশুদের হাতে পুষ্টিকর খাদ্য দ্রব্য তুলে দেয়া হবে। একইসাথে এই সমস্ত পরিবারগুলি সমাজের মূল স্রোতে ফেরাতে এবং তাদের স্থায়ী বাসস্থানের জন্য প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। খবার পেয়ে শিশুরাও ভীষণ খুশি।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published.