Arambagh Times
কাউকে ছাড়ে না
September 21, 2021

কাউকে ছাড়ে না

বাসের ভেতর দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা তেতাস জুয়ার আসরে খানাকুল পুলিশের হানা : জালে নাটের গুরু সহ পাঁচ বাস কর্মি: বাকিরা পলাতক

1 min read

সুশান্ত দাস: আরামবাগ টাইমস্ এ দীর্ঘদিন ধরে খানাকুলের বিভিন্ন বাস স্ট্যান্ড এ ১৬/২০ রুটের লাস্ট বাসের ভেতরে মদ ও জুয়ার আসর এবং এই আসরের মাস্টার মাইন্ড এর খপ্পরে পড়ে জুয়ায় সর্বশান্ত হওয়া বাস কর্মীদের পরিবারগুলোর যন্ত্রনার কথা তুলে ধরলেও নড়ানো যায়নি স্থানিয় পঞ্চায়েত ও পুলিশ প্রশাসনকে। এই প্রথম খানাকুল ও সি বিষয়টি গুরুত্ব দেওয়ায় খানাকুল থানার গড়েরঘাট বাস স্ট্যান্ড থেকে গতকাল ৮ সেপ্টেম্বর মধ্যরাতে প্রায় বারোটা নাগাদ এস আই নাজিরুদ্দীন আলির নেতৃত্বে পুলিশ বাহিনী গিয়ে WB15A7216 নম্বরের আরামবাগ-গড়েরঘাট বাসের ভেতর থেকে পাঁচ জনকে আটক করেন। আগামী কাল আটক পাঁচ জনকে আদালতে তোলা হবে বলে জানা গেছে। এদের মধ্যে নাকি নাটের গুরু বলে এলাকায় পরিচিত কানাই লাগা ছাড়াও বাকিরা সবাই বাসকর্মি রাজু সিং, অভিজিৎ হাজরা, সুকুমার দেওয়ান, অসিত দেওয়ান। বাকিরা সবাই পলাতক।
জানা গেছে, খানাকুলের ১৬/২০ রুটের বাসগুলোর লাস্ট স্টপেজ যেমন পানশিউলী, গড়েরঘাট, গনেশপুরে শেষ বাস গ্যারেজ হয়ে গেলে বাসকর্মিদের সংখ্যাগরিষ্ঠই মদের আসরের পাশাপাশি তেতাস জুয়ার আসর বসায়। প্রায় সারারাত ধরে জুয়ার সঙ্গে চলে উত্তপ্ত গালিগালাজ। এলাকায় অনেকেই দীর্ঘদিন ধরে এর প্রতিকার চাইছিলেন। একইসাথে জুয়ায় সর্বশান্ত হওয়া বাসকর্মিদের পরিবারের সদস্যরা নিত্য দিন অশান্তি আর আর্থিক সংকটের শিকার হওয়ার জন্য তারাও চাইছিলেন একটা কড়া পদক্ষেপ। অনেকেরই অভিযোগ, এই জুয়ার আসরের নাটের গুরু নাকি আরামবাগ থানা এলাকার পারুলের বাসিন্দা অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মি কানাই লাগা। এই কানাই লাগা খানাকুল ২ ব্লকের একটি ডিপটিউবয়েলের অপারেটর ছিলেন। ইনি নাকি চড়া সুদের মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করেন। এছাড়াও ১৬/২০ রুটের কোনোদিন গনেশপুর, কোনো দিন পানশিউলী অথবা গড়েরঘাট বাস স্ট্যান্ড এ আরামবাগ থেকে লাস্ট বাসে চলে যান। গাড়ি গ্যারেজ হলে খাওয়া শেষ হলে সেই বাসের মধ্যে শুরু হয় মদের সাথে তেতাস জুয়ার আসর। এই কানাই লাগাই নাকি চড়া সুদের মাধ্যমে টাকা জুগিয়ে জুয়ায় হেরে যাওয়া বাসকর্মিদের আরও উৎসাহিত করে সর্বশান্ত হওয়ার দিকে ঠেলে দেন। আর নিজে মোটা অংকের অর্থ উপার্জন করেন। শুধু জুয়াই নয়, এই আসরে চলে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ আর ঝগড়া। এলাকায় অনেকেই এসবের কারণে অপসংস্কৃতির প্রভাব পড়বে আশংকা করে প্রতিকার চাইছিলেন। বাস কর্মিদের বাড়িতে এর প্রভাব ভয়ঙ্কর ভাবে পড়লেও তারাও অসহায় ছিলেন। এক কথায় সবাই কঠোর ভাবে প্রশাসনিক হস্তক্ষেপ চাইছিলেন।‌খানাকুল থানার ওসি সুমন বাবু বিষয়টি নজরে রাখছিলেন। অবশেষে, গতকাল ৮ সেপ্টেম্বর রাত প্রায় সাড়ে বারোটা নাগাদ এস আই নাজীরুদ্দীন আলির নেতৃত্বে পুলিশ বাহিনী গড়েরঘাট বাস স্ট্যান্ড এ আরামবাগ- গড়েরঘাট বাসে (WB 15A7216)র ভেতরে জুয়া চলা কালীন কানাই লাগা সহ পাঁচ বাস কর্মিকে হাতেনাতে আটক করেন। বাকিরা সবাই পলাতক। খানাকুল থানার এই ভুমিকায় অনেকেই সাধুবাদ জানিয়েছেন।
ক্যামেরায় নব সাঁতরার সঙ্গে সুশান্ত দাসের রিপোর্ট, আরামবাগ টাইমস্।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *